ইউটিউব টিপস

ইউটিউব শর্টস ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম

বর্তমানে ইউটিউব শর্টস খুবই জনপ্রিয় একটি ফিচার। টিকটকের মতো শর্টস ভিডিও তৈরি করে আপলোড করা যায় এতে। সব বয়সী নারী-পুরুষের কাছে এটি এখন বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ২০২১ সালে টিকটককে টেক্কা দিতেই এই ফিচার এনেছিল গুগলের মালিকানা প্রতিষ্ঠান ইউটিউব।

ইউটিউব শর্টস কি ?

YOUTUBE SHOTS হচ্ছে ৬০সেকেন্ড বা তার কম দৈর্ঘ্যের ভিডিও এর সংগ্রহশালা। ইউটিউব মূলত টিকটক ও ইন্সটাগ্রাম রিলস এর মতো ফিচারসমূহকে টেক্কা দিতে এই ফিচার ইউটিউব অ্যাপে যুক্ত করে। অরিজিনাল আপলোড বা শর্ট রেকর্ড এর পাশাপাশি অন্য ভিডিওর সাউন্ড ব্যবহার করেও শর্টস ভিভিও তৈরি করা যায়।

YOUTUBE SHORTS তৈরির নিয়মঃ

ইউটিউব শর্টস আপলোড বা পাবলিশ করার অনেক গুলো উপায় রয়েছে। প্রথমত ভার্টিকাল এসপেক্ট রেশিওর ও ৬০ সেকেন্ডের যেকোনো ভিডিও আপলোড করলে, তা শর্টস হিসেবে গ্রহণ হবে। আবার ইউটিউবের ভিডিও সমূহে থাকা “CREATE” অপশন ব্যবহার করে উক্ত ভিডিওর সাউন্ড দ্বারা শর্টস তৈরি করা যাবে। এছাড়াও চিরাচরিত নিয়মে ভিডিও রেকর্ড করে আপলোডের সুযোগ তো থাকছেই।

ইউটিউব  অ্যাপ থেকে সরাসরি শর্টস তৈরি করতেঃ

প্রথমে YOUTUBE অ্যাপে প্রবেশ করুন।
অ্যাপের ঠিক মাঝখানে থাকা CREATE (+) BUTTOM এ ট্যাপ করুন।
CREATE A SHORTS এ ট্যাপ করুন।
১৫ সেকেন্ডের অধিক দৈর্ঘ্যের SHORTS তৈরি করতে উপরে থাকা 15 তে TAB করুন।
উল্লেখ্য যে সর্বোচ্চ ৬০ সেকেন্ড দৈর্ঘ্যের SHORTS ভিডিও রেকর্ড করা যাবে।
চাইলে SPEED সিলেক্ট করে ভিডিওর SPEED বাড়াতে বা কমাতে পারবেন।
ও এছাড়াও TIMER এ TAB করে হ্যান্ডস-ফ্রি VIDEO রেকর্ড করার অপশনও রয়েছে।
রেকর্ড শুরু করতে ক্যাপচার BUTTOM ট্যাপ করুন ও রেকর্ড বন্ধ করতে আবার একই BUTTOM চাপুন VIDEO রেকর্ড করা হয়ে গেলে DONE এ ট্যাপ করুন।
NEXT এ ট্যাপ করলে ভিডিও TITLE, প্রাইভেসি সেটিংস, ইত্যাদি নির্বাচন করতে পারবেন।
SELECT AUDIENCE সিলেক্ট করে আপনার ভিডিওর অডিয়েন্স সিলেক্ট করুন।
আপনার শর্টস পাবলিশ করতে UPLOAD এ ট্যাপ করুন।

তবে সমস্যা হলো শর্টস ভিডিওগুলো একবার দেখা হয়ে গেলে তা আর ফোনে ডাউনলোড করে রাখা যায় না। কয়েকটি সহজ পদ্ধতি অনুসরণ করলেই পছন্দের ইউটিউব শর্টগুলো ডাউনলোড করে রাখতে পারবেন।

কিভাবে YouTube Shorts ডাউনলোড করবেন?

>> প্রথমে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে গিয়ে ইউটিউব অ্যাপ খুলুন।
>> এবার একটি ইউটিউব শর্টস ভিডিও চালিয়ে সেটির শেয়ার বোতামে ক্লিক করুন এবং ভিডিওর লিঙ্কটি কপি করে নিন।
>> এবার গুগলে গিয়ে শর্টসনব ডটকম (Shortsnoob.com) ব্রাউজ করুন।
>> এরপর সার্চ অপশনের পাশে দেওয়া স্থানে ওই লিঙ্কটিকে পেস্ট করুন এবং সার্চ বার ক্লিক করুন।
>> এখন ভিডিওটি ডাউনলোড করে নিন। এটি আপনাআপনি ফোনে সেভ হয়ে যাবে।

স্মার্টফোনের গ্যালারি থেকে ভিডিও ফোল্ডারে গেলে ডাউনলোড করা ভিডিওটি দেখতে পাবেন। এই ভিডিও ইচ্ছামতো যে কাউকে পাঠাতে পারবেন যে কোনো সময়।

ইউটিউব শর্টস থেকে আয় করার সহজ উপায় – 

টিকটক সম্পর্কে জানি না এমন লোক হয়তো খুবই কম আছে। এই ব্যাপারটিকে গুরুত্ব দিয়ে শর্টস ফিচারটি চালু করে ইউটিউব। ইতিমধ্যে বেশ জনপ্রিয় একটি ইউটিউব ফিচারে পরিণত হয়েছে শর্টস।

ভিডিও আপলোড করে যেমন ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করা যায়, ঠিক তেমনি ইউটিউবে শর্ট ভিডিও থেকেও আয় করার উপায় আছে। ইউটিউবের মূল মনিটাইজেশন ফিচারের চেয়ে ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার বিষয়টি অনেকটাই আলাদা। আসুন জেনে নেই ইউটিউব শর্টস কি, এবং কিভাবে ইউটিউব শর্টস  ভিডিও তৈরি করবেন ও ইউটিউব শর্টস থেকে আয় করা যায়।

আরও পড়ুনঃ কিভাবে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করবেন?

YouTube শর্ট ডাউনলোড করা কি বৈধ?

আচ্ছা, ইউটিউব শর্ট ডাউনলোড করা বেআইনি নয়। যাইহোক, ডাউনলোড করা Shorts ভিডিওগুলির সাথে আপনি যা করবেন তা সিদ্ধান্ত নিতে পারে যে আপনার কার্যকলাপ বৈধ কিনা। আপনি যদি Shorts ভিডিও ডাউনলোড করে পরে দেখতে চান, সেগুলি বিশ্লেষণ করুন এবং তাদের থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে আপনার নিজের Shorts ভিডিও, YouTube চ্যানেল তৈরি করুন, তাহলে এটা বেআইনি।

এর কারণ হল আপনি যে YouTube Shorts ভিডিওটি ডাউনলোড করছেন সেটি একজন নির্দিষ্ট YouTuber এর বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পত্তি এবং আপনি তার লিখিত অনুমতি ছাড়া এটি আপলোড করতে পারবেন না।

উপসংহার

অনলাইনে YouTube Shorts ডাউনলোডার অনুসন্ধান না করে, কোনো সীমাবদ্ধতা ছাড়াই যেকোনো YouTube Shorts ভিডিও ডাউনলোড করতে আপনার YTShorts SaveTube ব্যবহার করা উচিত। আপনি ম্যালওয়্যার সম্পর্কে চিন্তা না করে এবং সাইন আপ না করে যেকোন সংখ্যক Shorts ভিডিও ডাউনলোড করতে পারেন। অবিলম্বে আপনার ডিভাইস থেকে বিদ্যুৎ-দ্রুত গতিতে ভিডিও ডাউনলোড করুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!